খবর ও সর্বশেষ সংবাদের জন্য চোখ রাখুন জনতার আওয়াজের পর্দায়

দীর্ঘদিনের পিঠ ও কোমরের ব্যথা ক্যানসারের লক্ষণ নয় তো?

অতিরিক্ত পরিশ্রম কিংবা দীর্ঘক্ষণ একই স্থানে বসে থাকার কারণে ব্যাকপেইন হতে পারে। বিশেষ করে যারা অফিসে দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটারের সামনে বসে কাজ করেন তাদের মধ্যে ব্যাকপেইনের সমস্যা বেশি দেখা যায়। আবার বয়সের সঙ্গে সঙ্গে অনেকের মধ্যেই পিঠ ও কোমর সংক্রান্ত ব্যথার প্রভাব বাড়তে থাকে।

কমবেশি সবাই ব্যকপেইন সাধারণ বলেই মনে করেন। এই ব্যথা তেমন গুরুতর প্রভাব না ফেললেও দীর্ঘদিন সমস্যায় ভুগলে এখনই সতর্ক হন। কারণ ব্যাকপেইন কিন্তু ক্যানসারের অন্যতম এক লক্ষণ হতে পারে।

প্রাথমিক পর্যায়ে কোনো ক্যানসারই শরীরে তেমন উপসর্গ সৃষ্টি করে না। আর যেগুলো প্রকাশ পায় তা সাধারণ ভেবে ভুল করে সবাই। তবে প্রথমদিকে ক্যানসার শনাক্ত না হলে তা পুরো শরীরে ছড়িয়ে পড়তে পারে।

পিঠ ও কোমরের ব্যথা কোন কোন কানসারের ইঙ্গিত দেয়?

মূত্রাশয় ক্যানসার

তলপেটের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হলো মূত্রাশয়। এটি প্রস্রাব সঞ্চয় করে। পিঠের নিচের অংশে ব্যথা মূত্রাশয় ক্যানসারের লক্ষণ হতে পারে।

ইয়েল মেডিসিন অনুসারে, মূত্রাশয়ের গভীরতম টিস্যুতেই সাধারণত টিউমার বড় হতে থাকে। তলপেটে ব্যথা সাধারণত মূত্রাশয় ক্যানসারের গুরুতর লক্ষণ হতে পারে। এক্ষেত্রে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

মূত্রাশয় ক্যানসারের লক্ষণগুলোর মধ্যে আছে- ঘন ঘন প্রস্রাব, প্রস্রাবে রক্ত ও প্রস্রাবের সময় ব্যথা।

মেরুদণ্ডের ক্যানসার

স্পাইনাল কর্ড ও মেরুদণ্ডের কলামের ক্যানসারও পিঠের ব্যথার কারণ হতে পারে। যদিও এটি বিরল। মেরুদণ্ডে টিউমার হলে পিপ ও কোমরে ব্যথা হওয়া খুবই স্বাভাবিক।

মূত্রাশয় ক্যানসারের মতোই মেরুদণ্ডের ক্যানসারের ক্ষেত্রেও পিঠে ব্যথা প্রাথমিক এক লক্ষণ। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এই ব্যথা তীব্র হতে পারে ও শরীরের অন্যান্য অংশে যেমন হাত-পায়ে ছড়িয়ে পড়তে পারে।

মেরুদণ্ডের ক্যানসারের লক্ষণগুলো হলো- অসাড়তা, দুর্বলতা, বাহু ও পায়ে দুর্বলতা ও পক্ষাঘাত।

ফুসফুসের ক্যানসার

ফুসফুসের ক্যানসারের বিভিন্ন লক্ষণগুলোর মধ্যে একটি হলো পিঠ ও কোমরের ব্যথা বা ব্যাকপেইন। আপনি যদি পিঠে ব্যথার সঙ্গে ফুসফুসের ক্যানসারের অন্য কোনো উপসর্গ লক্ষ্য করেন, তাহলে ডাক্তার দেখান।

ফুসফুসের ক্যানসারের লক্ষণগুলো হলো- কাশিতে রক্ত পড়া, অবিরাম শ্বাসকষ্ট, দীর্ঘস্থায়ী কাশি যা আরও খারাপ হয় ও কাশি যা দুই বা তার বেশি সপ্তাহ ধরে থাকে।

ক্যানসারের ঝুঁকি কমাতে যা করবেন

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মতে, প্রায় ৩০-৪০ শতাংশ ক্যানসারের ঝুঁকি জীবনধারার কারণে ঘটে। ক্যানসারের ঝুঁকি কমাতে অবশ্যই স্বাস্থ্যকর জীবনধারা অনুসরণ করতে হবে।

প্রচুর ফল ও শাকসবজি খেতে হবে নিয়মিত। এর পাশাপাশি নিয়মিত ব্যায়াম করা, স্বাস্থ্যকর ওজন বজায় রাখা ও ধূমপানের অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

Leave A Reply

Your email address will not be published.